ঢাকা ০৪:০০ পূর্বাহ্ন, মঙ্গলবার, ২৭ ফেব্রুয়ারী ২০২৪, ১৪ ফাল্গুন ১৪৩০ বঙ্গাব্দ

ঢাকায় কমে যাচ্ছে পুকুর-জলাশয়

নিজস্ব প্রতিবেদক
  • আপডেট : ০৪:২৬:৫৪ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ৪ মে ২০২৩
  • / 109
ফায়ার সার্ভিস ও সিভিল ডিফেন্স অধিদপ্তরের পরিচালক (অপারেশন ও মেইনটেন্যান্স) লেফটেন্যান্ট কর্নেল তাজুল ইসলাম চৌধুরী জানিয়েছেন, ফায়ার সার্ভিসের হিসাব মতে ২০১৮ সালে রাজধানী ঢাকায় পুকুর ছিল ১০০টি। বর্তমানে তা কমে দাঁড়িয়েছে ২৯টিতে। পাঁচ বছরে ঢাকায় পুকুর কমেছে ৭১টি।

বৃহস্পতিবার জাতীয় প্রেস ক্লাবের তোফাজ্জল হোসেন মানিক মিয়া হলে আয়োজিত নগর সংলাপে এসব তথ্য জানান তিনি। ‘বারবার অগ্নিদুর্ঘটনার কারণ : প্রতিরোধে করণীয়’ শীর্ষক নগর সংলাপের আয়োজন করে নগর উন্নয়ন সাংবাদিক ফোরাম।

তাজুল ইসলাম চৌধুরী বলেন, ‘ঢাকায় জলাশয় কমে যাচ্ছে। সংশ্লিষ্ট সংস্থাগুলোকে কার্যকর ব্যবস্থা নিতে। এটা জরুরি হয়ে পড়েছে।’

ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশনের (ডিএসসিসি) প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা মো. মিজানুর রহমান বলেন, পুকুর, জলাশয় ভরাট হয়ে যাচ্ছে; তা অস্বীকার করার সুযোগ নেই। তবে ইতোমধ্যে বুড়িগঙ্গার আদি চ্যানেল উদ্ধারের কাজ শুরু করা হয়েছে। মান্ডা, জিরনিসহ বেশ কয়েকটি খাল উন্নয়নে প্রকল্প বাস্তবায়ন করা হচ্ছে। জলাশয় রক্ষা ও দুর্যোগ ঝুঁকি হ্রাস করতে ডিএসসিসি কাজ করছে।

সংলাপে প্রধান অতিথি ছিলেন স্থানীয় সরকার, পল্লী উন্নয়ন ও সমবায়মন্ত্রী তাজুল ইসলাম। বিশেষ অতিথি ছিলেন রাজধানী উন্নয়ন করপোরেশন বা রাজউকের চেয়ারম্যান আনিছুর রহমান মিঞা। কি-নোট উপস্থাপন করেন বাংলাদেশ ইনস্টিটিউট অব প্ল্যানার্স বা বিআইপির সাধারণ সম্পাদক শেখ মো. মেহেদী আহসান।

নিউজটি শেয়ার করুন

ট্যাগস :

ঢাকায় কমে যাচ্ছে পুকুর-জলাশয়

আপডেট : ০৪:২৬:৫৪ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ৪ মে ২০২৩
ফায়ার সার্ভিস ও সিভিল ডিফেন্স অধিদপ্তরের পরিচালক (অপারেশন ও মেইনটেন্যান্স) লেফটেন্যান্ট কর্নেল তাজুল ইসলাম চৌধুরী জানিয়েছেন, ফায়ার সার্ভিসের হিসাব মতে ২০১৮ সালে রাজধানী ঢাকায় পুকুর ছিল ১০০টি। বর্তমানে তা কমে দাঁড়িয়েছে ২৯টিতে। পাঁচ বছরে ঢাকায় পুকুর কমেছে ৭১টি।

বৃহস্পতিবার জাতীয় প্রেস ক্লাবের তোফাজ্জল হোসেন মানিক মিয়া হলে আয়োজিত নগর সংলাপে এসব তথ্য জানান তিনি। ‘বারবার অগ্নিদুর্ঘটনার কারণ : প্রতিরোধে করণীয়’ শীর্ষক নগর সংলাপের আয়োজন করে নগর উন্নয়ন সাংবাদিক ফোরাম।

তাজুল ইসলাম চৌধুরী বলেন, ‘ঢাকায় জলাশয় কমে যাচ্ছে। সংশ্লিষ্ট সংস্থাগুলোকে কার্যকর ব্যবস্থা নিতে। এটা জরুরি হয়ে পড়েছে।’

ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশনের (ডিএসসিসি) প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা মো. মিজানুর রহমান বলেন, পুকুর, জলাশয় ভরাট হয়ে যাচ্ছে; তা অস্বীকার করার সুযোগ নেই। তবে ইতোমধ্যে বুড়িগঙ্গার আদি চ্যানেল উদ্ধারের কাজ শুরু করা হয়েছে। মান্ডা, জিরনিসহ বেশ কয়েকটি খাল উন্নয়নে প্রকল্প বাস্তবায়ন করা হচ্ছে। জলাশয় রক্ষা ও দুর্যোগ ঝুঁকি হ্রাস করতে ডিএসসিসি কাজ করছে।

সংলাপে প্রধান অতিথি ছিলেন স্থানীয় সরকার, পল্লী উন্নয়ন ও সমবায়মন্ত্রী তাজুল ইসলাম। বিশেষ অতিথি ছিলেন রাজধানী উন্নয়ন করপোরেশন বা রাজউকের চেয়ারম্যান আনিছুর রহমান মিঞা। কি-নোট উপস্থাপন করেন বাংলাদেশ ইনস্টিটিউট অব প্ল্যানার্স বা বিআইপির সাধারণ সম্পাদক শেখ মো. মেহেদী আহসান।