ঢাকা ০৭:৪৩ অপরাহ্ন, সোমবার, ১৫ জুলাই ২০২৪, ৩১ আষাঢ় ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

চীনের টিকা শিক্ষার্থীদের দেয়া হবে

প্রতিনিধির নাম
  • আপডেট : ১০:৪৫:৩১ পূর্বাহ্ন, সোমাবার, ৩১ মে ২০২১
  • / 154

ফাইল ছবি।

::নিজস্ব প্রতিবেদক::

চীন থেকে করোনাভাইরাসের যে দেড় কোটি টিকা আসবে তা অগ্রাধিকার ভিত্তিতে বিশ্ববিদ্যালয় ও মেডিকেল শিক্ষার্থীদের দেয়া হবে বলে জানিয়েছেন স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণমন্ত্রী জাহিদ মালেক।

সোমবার দুপুরে মন্ত্রিপরিষদের বৈঠক শেষে সচিবালয়ে সাংবাদিকদের এ কথা বলেন তিনি।

তিনি বলেন, ৫০ লাখ করে তিন দফায় চীনের দেড় কোটি ভ্যাকসিন দেশে আসবে। ফাইজারের ভ্যাকসিনের ক্ষেত্রেও শিক্ষার্থীদের অগ্রাধিকার দেওয়া হবে। মেডিকেল ও বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীরা এটা আগে নিবেন। সে অনুযায়ী শিক্ষা কার্যক্রম শুরু হয়ে যাবে।

স্বাস্থ্যমন্ত্রী বলেন, যেসব জেলায় কোভিডের সংক্রমণ উধ্বমুখী সেখানে লকডাউন দেওয়ার পরামর্শ দিয়েছে স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়। যত তাড়াতাড়ি সম্ভব লকডাউন দিয়ে দেয়া উচিত, যাতে ছড়িয়ে না পড়ে। আমাদের ৫ কোটি লোককে আপাতত টিকা দেওয়া প্রয়োজন। এতে দেশ সুরক্ষিত হবে বলেও জানান তিনি।

সীমান্তের জেলাগুলোতে করোনা সংক্রমণ বেড়ে যাওয়ায় উদ্বেগ প্রকাশ করেছেন স্বাস্থ্যমন্ত্রী জাহিদ মালেক। তিনি বলেন, সীমান্তের জেলাগুলোতে করোনা সংক্রমণ বেড়ে যাচ্ছে, যা উদ্বেগজনক। এই জেলাগুলোতে করোনা ঊর্ধ্বমুখী হওয়ায় যত তাড়াতাড়ি সম্ভব লকডাউন দেওয়ার নির্দেশনা দিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী। কেবিনেট ডিভিশন এটা নিয়ে কাজ করছে। তবে সেসব জেলায় এখন আমের ব্যবসা চলছে। তাই পর্যবেক্ষণ করা হচ্ছে কখন দেওয়া হবে।

নিউজটি শেয়ার করুন

ট্যাগস :

চীনের টিকা শিক্ষার্থীদের দেয়া হবে

আপডেট : ১০:৪৫:৩১ পূর্বাহ্ন, সোমাবার, ৩১ মে ২০২১
::নিজস্ব প্রতিবেদক::

চীন থেকে করোনাভাইরাসের যে দেড় কোটি টিকা আসবে তা অগ্রাধিকার ভিত্তিতে বিশ্ববিদ্যালয় ও মেডিকেল শিক্ষার্থীদের দেয়া হবে বলে জানিয়েছেন স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণমন্ত্রী জাহিদ মালেক।

সোমবার দুপুরে মন্ত্রিপরিষদের বৈঠক শেষে সচিবালয়ে সাংবাদিকদের এ কথা বলেন তিনি।

তিনি বলেন, ৫০ লাখ করে তিন দফায় চীনের দেড় কোটি ভ্যাকসিন দেশে আসবে। ফাইজারের ভ্যাকসিনের ক্ষেত্রেও শিক্ষার্থীদের অগ্রাধিকার দেওয়া হবে। মেডিকেল ও বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীরা এটা আগে নিবেন। সে অনুযায়ী শিক্ষা কার্যক্রম শুরু হয়ে যাবে।

স্বাস্থ্যমন্ত্রী বলেন, যেসব জেলায় কোভিডের সংক্রমণ উধ্বমুখী সেখানে লকডাউন দেওয়ার পরামর্শ দিয়েছে স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়। যত তাড়াতাড়ি সম্ভব লকডাউন দিয়ে দেয়া উচিত, যাতে ছড়িয়ে না পড়ে। আমাদের ৫ কোটি লোককে আপাতত টিকা দেওয়া প্রয়োজন। এতে দেশ সুরক্ষিত হবে বলেও জানান তিনি।

সীমান্তের জেলাগুলোতে করোনা সংক্রমণ বেড়ে যাওয়ায় উদ্বেগ প্রকাশ করেছেন স্বাস্থ্যমন্ত্রী জাহিদ মালেক। তিনি বলেন, সীমান্তের জেলাগুলোতে করোনা সংক্রমণ বেড়ে যাচ্ছে, যা উদ্বেগজনক। এই জেলাগুলোতে করোনা ঊর্ধ্বমুখী হওয়ায় যত তাড়াতাড়ি সম্ভব লকডাউন দেওয়ার নির্দেশনা দিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী। কেবিনেট ডিভিশন এটা নিয়ে কাজ করছে। তবে সেসব জেলায় এখন আমের ব্যবসা চলছে। তাই পর্যবেক্ষণ করা হচ্ছে কখন দেওয়া হবে।