ঢাকা ০৭:২৭ অপরাহ্ন, মঙ্গলবার, ১৬ জুলাই ২০২৪, ১ শ্রাবণ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

চরমোনাই পীরের মাহফিলে বিএনপির ১০ নেতা

নিজস্ব প্রতিবেদক
  • আপডেট : ০৬:৫৪:৪৫ অপরাহ্ন, সোমাবার, ২০ ফেব্রুয়ারী ২০২৩
  • / 172
চরমোনাই পীরের মাহফিলে গেছেন বিএনপির কেন্দ্রীয় নেতাসহ ১০ সদস্যের একটি প্রতিনিধি দল। গত শুক্রবার বরিশালের চরমোনাই দরবার শরিফের বার্ষিক মাহফিলে হাজির হন তারা। সেখানে দেশের চলমান রাজনৈতিক পরিস্থিতি নিয়ে দুই দলের নেতাদের আলোচনা হয়।

এ সময় বিএনপি নেতারা সেখানে মধ্যাহ্নভোজে অংশ নেন। দরবারের মেহমানখানায় এই ভোজের ফাঁকে চরমোনাই পীর ও ইসলামী আন্দোলনের আমির মুফতি রেজাউল করীমসহ দলটির শীর্ষ নেতাদের সঙ্গে কুশল বিনিময় হয়।

বিএনপির প্রতিনিধি দলে উল্লেখযোগ্য নেতাদের মধ্যে ছিলেন, দলের কেন্দ্রীয় ভাইস চেয়ারম্যান জয়নুল আবেদীন, কেন্দ্রীয় মিডিয়া সেলের প্রধান জহির উদ্দীন স্বপন, কেন্দ্রীয় নির্বাহী কমিটির সদস্য ও সাবেক সংসদ সদস্য আবুল হোসেন খান, বরিশাল দক্ষিণ জেলা বিএনপির সদস্যসচিব আবুল কালাম।

সূত্র বলছে, বিএনপি চাইছে, তাদের চলমান নির্দলীয় সরকারসহ ১০ দাবির পক্ষে অন্য সমমনা দলগুলোর মতোই চরমোনাই পীরের দল ইসলামী আন্দোলন শরিক হোক। দলটির লক্ষ্য, ১০ দফা দাবির সপক্ষে যত বেশি রাজনৈতিক শক্তিকে ঐক্যবদ্ধ করা যাবে, তত বেশি সরকারের ওপর চাপ সৃষ্টি করা যাবে। এ প্রচেষ্টার অংশ হিসেবেই বিএনপির প্রতিনিধিদলটি চরমোনাই পীরের দল ইসলামী আন্দোলনের মনোভাব বোঝার জন্য মাহফিলে গিয়েছিল।

বিএনপির নেতারা বলেছেন, সেখানে যাওয়ার জন্য তাদের কোনো ‘দলীয় অ্যাজেন্ডা’ ছিল না। মাহফিলে তাদের আমন্ত্রণ জানানো হয়েছিল। সেই আমন্ত্রণ পেয়েই তারা সেখানে গিয়েছিলেন। সেখানে চরমোনাই পীরের সঙ্গে তাদের কুশল বিনিময় হয়েছে। দেশের চলমান রাজনীতি নিয়ে প্রসঙ্গক্রমে কথাবার্তা হয়েছে। এর বাইরে কিছু নয়।

নিউজটি শেয়ার করুন

ট্যাগস :

চরমোনাই পীরের মাহফিলে বিএনপির ১০ নেতা

আপডেট : ০৬:৫৪:৪৫ অপরাহ্ন, সোমাবার, ২০ ফেব্রুয়ারী ২০২৩
চরমোনাই পীরের মাহফিলে গেছেন বিএনপির কেন্দ্রীয় নেতাসহ ১০ সদস্যের একটি প্রতিনিধি দল। গত শুক্রবার বরিশালের চরমোনাই দরবার শরিফের বার্ষিক মাহফিলে হাজির হন তারা। সেখানে দেশের চলমান রাজনৈতিক পরিস্থিতি নিয়ে দুই দলের নেতাদের আলোচনা হয়।

এ সময় বিএনপি নেতারা সেখানে মধ্যাহ্নভোজে অংশ নেন। দরবারের মেহমানখানায় এই ভোজের ফাঁকে চরমোনাই পীর ও ইসলামী আন্দোলনের আমির মুফতি রেজাউল করীমসহ দলটির শীর্ষ নেতাদের সঙ্গে কুশল বিনিময় হয়।

বিএনপির প্রতিনিধি দলে উল্লেখযোগ্য নেতাদের মধ্যে ছিলেন, দলের কেন্দ্রীয় ভাইস চেয়ারম্যান জয়নুল আবেদীন, কেন্দ্রীয় মিডিয়া সেলের প্রধান জহির উদ্দীন স্বপন, কেন্দ্রীয় নির্বাহী কমিটির সদস্য ও সাবেক সংসদ সদস্য আবুল হোসেন খান, বরিশাল দক্ষিণ জেলা বিএনপির সদস্যসচিব আবুল কালাম।

সূত্র বলছে, বিএনপি চাইছে, তাদের চলমান নির্দলীয় সরকারসহ ১০ দাবির পক্ষে অন্য সমমনা দলগুলোর মতোই চরমোনাই পীরের দল ইসলামী আন্দোলন শরিক হোক। দলটির লক্ষ্য, ১০ দফা দাবির সপক্ষে যত বেশি রাজনৈতিক শক্তিকে ঐক্যবদ্ধ করা যাবে, তত বেশি সরকারের ওপর চাপ সৃষ্টি করা যাবে। এ প্রচেষ্টার অংশ হিসেবেই বিএনপির প্রতিনিধিদলটি চরমোনাই পীরের দল ইসলামী আন্দোলনের মনোভাব বোঝার জন্য মাহফিলে গিয়েছিল।

বিএনপির নেতারা বলেছেন, সেখানে যাওয়ার জন্য তাদের কোনো ‘দলীয় অ্যাজেন্ডা’ ছিল না। মাহফিলে তাদের আমন্ত্রণ জানানো হয়েছিল। সেই আমন্ত্রণ পেয়েই তারা সেখানে গিয়েছিলেন। সেখানে চরমোনাই পীরের সঙ্গে তাদের কুশল বিনিময় হয়েছে। দেশের চলমান রাজনীতি নিয়ে প্রসঙ্গক্রমে কথাবার্তা হয়েছে। এর বাইরে কিছু নয়।