ঢাকা ০৩:২১ পূর্বাহ্ন, মঙ্গলবার, ২৭ ফেব্রুয়ারী ২০২৪, ১৪ ফাল্গুন ১৪৩০ বঙ্গাব্দ

মিরপুরে IELTS & PTE সেন্টার ‘স্কোর ম্যাক্স’ উদ্বোধন

নিজস্ব প্রতিবেদক
  • আপডেট : ০৯:৫৮:০৪ অপরাহ্ন, শুক্রবার, ২৯ সেপ্টেম্বর ২০২৩
  • / 146

ইংরেজী ভাষা আত্নস্থ করার মাধ্যমে সর্বোচ্চ স্কোর অর্জনে সক্ষম করে তোলার লক্ষ্য নিয়ে রাজধানীর মিরপুরে উদ্বোধন করা হয়েছে IELTS (International English Language Testing System) & PTE (Pearson Test of English) সেন্টার ‘স্কোর ম্যাক্স’।

গত বুধবার (২৭ সেপ্টেম্বর) রাজধানীর মিরপুর ইংলিশ ভার্সন স্কুল এন্ড কলেজ’ ক্যাম্পাসের নিচতলায় এক অনাড়ম্বর অনুষ্ঠানের মাধ্যমে IELTS & PTE সেন্টার  ‘স্কোর ম্যাক্স’ এর নতুন একটি শাখা উদ্বোধন করা হয়।

প্রতিষ্ঠানের ফাউন্ডার অধ্যক্ষ ইয়াহিয়া খান রিজনের উপস্থাপনা এবং পরিচালনায় উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে অন্যান্যের মধ্যে রাজধানীর আলহাজ মধু বেপারী উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক মীর আব্দুল মালেক, রাজধানীর অদূরে টংগীর ফিউচার ম্যাপ স্কুলের প্রধান শিক্ষক মোহাম্মদ নাজিমুদ্দিন রুবেলসহ দেশের স্বনামখ্যাত বিশ্ববিদালয়ে ইংরেজী বিষয় পড়ুয়া সাবেক শিক্ষার্থীগণ উপস্থিত ছিলেন। যারা বর্তমানে স্ব স্ব পরিচয়ে সরকারি-বেসরকারি বিভিন্ন সংস্থা এবং অধিদপ্তরে কর্মরত রয়েছেন।

অনুষ্ঠানের শুরুতে IELTS & PTE সেন্টারের ফাউন্ডার এবং মিরপুর ইংলিশ ভার্সন স্কুল এন্ড কলেজের অধ্যক্ষ ইয়াহিয়া খান রিজন  ‘স্কোর ম্যাক্স’ চালু করার ভাবনা, লক্ষ্য, উদ্দেশ্য এবং সেন্টারের কারিগরি ও ব্যবহারিক নানা দিক উপস্থাপন করেন।অনুষ্ঠানে আমন্ত্রিত অতিথি মিরপুরের আলহাজ মধু বেপারী উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক মীর আব্দুল মালেক এক প্রতিক্রিয়ায় বলেন, দক্ষ জনশক্তি গড়তে ইংরেজি শিক্ষার দরকার আছে, তবে আমরা যেন আমাদের মাতৃভাষাকে যথাযথ মর্যাদা দেই। তিনি আরও বলেন, এই IELTS & PTE সেন্টারে লেখা পড়ার মান যেন ভাল থাকে। ছাত্রছাত্রীরা যেন ভাল কিছু অর্জন করতে পারে-আমি এই প্রত্যাশাই করছি।

IELTS & PTE সেন্টারের ফাউন্ডার এবং মিরপুর ইংলিশ ভার্সন স্কুল এন্ড কলেজের অধ্যক্ষ ইয়াহিয়া খান রিজন বলেন, বাংলাদেশের ডিজিটাল ব্যবস্থার উন্নয়ন, অন্তভুর্ক্তিমূলক প্রবৃদ্ধি এবং ডিজিটাল বাংলাদেশ থেকে স্মার্ট বাংলাদেশে উত্তরণে আইইএলটিএস অত্যাবশ্যকীয় একটি কোর্স। বর্তমান সময়ে ইউরোপ, আমেরিকাসহ উন্নয়নশীল সকল দেশেই IELTS & PTE স্কোর অন্যতম এবং প্রধান একটি চাহিদা। তাই প্রয়োজনীয়তা এবং গুরুত্বের বিষয়টি উপলব্ধি করেই সর্বাধুনিক প্রযুক্তি আত্মীকরণের মাধ্যমে ‘স্কোর ম্যাক্স’ সমাজের সকল স্তরের মানুষেকে ইংরেজী বিষয়ে দক্ষ করে তুলতে নিরলসভাবে কাজ করে যাবে।
বাংলাদেশ ডিজিটাল স্কুল সোসাইটির চেয়ারম্যান অধ্যক্ষ ইয়াহিয়া খান রিজন বলেন, আমাদের এই সেন্টারটি বিশ্বের উন্নয়নশীল দেশগুলোর সাথে তালমিলিয়ে উচ্চতর শিক্ষার্থীদের ইংরেজী ভাষায় কথোপকথনে উন্নতি সাধন, বিশ্ববিদ্যালয়ে ভর্তি কার্যক্রমে সার্বিক সহযোগিতা, সর্বোচ্চ স্কোর নিয়ে উন্নত একটি রাষ্ট্রে সহজে প্রবেশ করতে পারে –সে বিষয়ে গুরুত্ব সহকারে ‘স্কোর ম্যাক্স’ কাজ করবে।

এ সময় উপস্থিত বিভিন্ন সরকারি-বেসরকারি দপ্তরের আমন্ত্রিত বিশেষ অতিথিবৃন্দ এই উদ্যোগের ব্যাপারে তাদের গুরুত্বপূর্ণ মতামত এবং উপদেশ ব্যক্ত করেন। তাঁরা ইংরেজী ভাষার অন্তর্ভুক্তিমূলক বন্টন, উন্নত ও উন্নয়নশীল দেশসমূহে আইইএলটিএস’র গুরুত্ব, প্রয়োজনীয়তা এবং উচ্চতর শিক্ষার্থীদের ইংরেজী বিষয়ে অধিকতর পারদর্শী হওয়ার আহবান জানান। এ লক্ষ্যে ‘স্কোর ম্যাক্স সেন্টার কার্যকর ভূমিকা রাখবে বলে তাঁরা আশাবাদ ব্যক্ত করেন।

উল্লেখ্য, উচ্চ শিক্ষা এবং অভিবাসনের জন্য IELTS (International English Language Testing System) স্কোর বিশ্বের সবচেয়ে জনপ্রিয় এবং প্রচলিত ইংরেজি ভাষায় দক্ষতা পরীক্ষা হিসাবে বিবেচিত ও ব্যাপকভাবে স্বীকৃত। দেশের কোনো নাগরিক বিদেশে উচ্চতর শিক্ষা নিতে চাইলে, স্থায়ীভাবে কর্মজীবনের বিকাশ করতে চাইলে বা বসতি স্থাপন করতে চাইলে ভিসা প্রাপ্তিতে IELTS স্কোর প্রধান চাহিদা পূরণে অন্যতম সহায়ক হিসেবে কাজ করে।

কারণ IELTS স্কোর পরীক্ষার ফলাফল বিদেশের কোনো শিক্ষা প্রতিষ্ঠান, নিয়োগকর্তা, পেশাদার সংস্থা বা সরকার দ্বারা স্বীকৃত হবে যা কোনো ব্যাক্তির ইংরেজি ভাষার উপর দক্ষতা যাচাইয়ে প্রমাণপত্র হিসেবে কাজ করবে। করতে হবে। অস্ট্রেলিয়া, কানাডা, নিউজিল্যান্ড এবং ইউনাইটেড কিংডমের সরকার সকলেই ইমিগ্রেশন আবেদন প্রক্রিয়াকরণের সময় IELTS স্কোর-কে আবশ্যিক বা প্রধান্য দিয়ে থাকে।IELTS  স্কোর 30 বছরেরও বেশি সময় ধরে ইংরেজি-ভাষা পরীক্ষার জন্য মান নির্ধারণ করে আসছে। এটি বিশ্বের 140 টিরও বেশি দেশে 11,500 টিরও বেশি সংস্থার দ্বারা বিশ্বস্ত।
অপরদিকে, বিশ্বব্যাপী শিক্ষা প্রতিষ্ঠান PTE (Pearson Test of English) পরীক্ষাকে ইংরেজি ভাষার দক্ষতা পরীক্ষা হিসেবে স্বীকৃতি দেয়। শিক্ষার্থী এবং আবেদনকারীরা যারা বিদেশে পড়াশোনা করতে চায় বা বিদেশে অভিবাসন করতে চায় তারা সাধারণত এই ইংরেজি পরীক্ষা দেয়। PTE পরীক্ষা হল দেশের শিক্ষার্থীদের জন্য সবচেয়ে বিশ্বস্ত ইংরেজি পরীক্ষাগুলির মধ্যে অন্যতম। যা বিদেশের বিশ্ববিদ্যালয়ে বা দেশগুলিতে আবেদন করতে চাইলে যোগাযোগের প্রাথমিক উত্স হিসাবে কাজ করে। অস্ট্রেলিয়া, নিউজিল্যান্ড,যুক্তরাষ্ট্র এবং যুক্তরাজ্যেসহ আরো অনেক দেশে ইংরেজি ভাষাকে প্রধান্য দেওয়া প্রায় 3,000 টিরও বেশি কলেজ-বিশ্ববিদ্যালয়ে ভর্তি আবেদন, ভিসা আবেদন এবং প্রাপ্তির  জন্য পূর্ব শর্ত হিসেবে PTE স্কোর আশ্যিক হিসেবে কাজ করে।

নিউজটি শেয়ার করুন

ট্যাগস :

মিরপুরে IELTS & PTE সেন্টার ‘স্কোর ম্যাক্স’ উদ্বোধন

আপডেট : ০৯:৫৮:০৪ অপরাহ্ন, শুক্রবার, ২৯ সেপ্টেম্বর ২০২৩

ইংরেজী ভাষা আত্নস্থ করার মাধ্যমে সর্বোচ্চ স্কোর অর্জনে সক্ষম করে তোলার লক্ষ্য নিয়ে রাজধানীর মিরপুরে উদ্বোধন করা হয়েছে IELTS (International English Language Testing System) & PTE (Pearson Test of English) সেন্টার ‘স্কোর ম্যাক্স’।

গত বুধবার (২৭ সেপ্টেম্বর) রাজধানীর মিরপুর ইংলিশ ভার্সন স্কুল এন্ড কলেজ’ ক্যাম্পাসের নিচতলায় এক অনাড়ম্বর অনুষ্ঠানের মাধ্যমে IELTS & PTE সেন্টার  ‘স্কোর ম্যাক্স’ এর নতুন একটি শাখা উদ্বোধন করা হয়।

প্রতিষ্ঠানের ফাউন্ডার অধ্যক্ষ ইয়াহিয়া খান রিজনের উপস্থাপনা এবং পরিচালনায় উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে অন্যান্যের মধ্যে রাজধানীর আলহাজ মধু বেপারী উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক মীর আব্দুল মালেক, রাজধানীর অদূরে টংগীর ফিউচার ম্যাপ স্কুলের প্রধান শিক্ষক মোহাম্মদ নাজিমুদ্দিন রুবেলসহ দেশের স্বনামখ্যাত বিশ্ববিদালয়ে ইংরেজী বিষয় পড়ুয়া সাবেক শিক্ষার্থীগণ উপস্থিত ছিলেন। যারা বর্তমানে স্ব স্ব পরিচয়ে সরকারি-বেসরকারি বিভিন্ন সংস্থা এবং অধিদপ্তরে কর্মরত রয়েছেন।

অনুষ্ঠানের শুরুতে IELTS & PTE সেন্টারের ফাউন্ডার এবং মিরপুর ইংলিশ ভার্সন স্কুল এন্ড কলেজের অধ্যক্ষ ইয়াহিয়া খান রিজন  ‘স্কোর ম্যাক্স’ চালু করার ভাবনা, লক্ষ্য, উদ্দেশ্য এবং সেন্টারের কারিগরি ও ব্যবহারিক নানা দিক উপস্থাপন করেন।অনুষ্ঠানে আমন্ত্রিত অতিথি মিরপুরের আলহাজ মধু বেপারী উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক মীর আব্দুল মালেক এক প্রতিক্রিয়ায় বলেন, দক্ষ জনশক্তি গড়তে ইংরেজি শিক্ষার দরকার আছে, তবে আমরা যেন আমাদের মাতৃভাষাকে যথাযথ মর্যাদা দেই। তিনি আরও বলেন, এই IELTS & PTE সেন্টারে লেখা পড়ার মান যেন ভাল থাকে। ছাত্রছাত্রীরা যেন ভাল কিছু অর্জন করতে পারে-আমি এই প্রত্যাশাই করছি।

IELTS & PTE সেন্টারের ফাউন্ডার এবং মিরপুর ইংলিশ ভার্সন স্কুল এন্ড কলেজের অধ্যক্ষ ইয়াহিয়া খান রিজন বলেন, বাংলাদেশের ডিজিটাল ব্যবস্থার উন্নয়ন, অন্তভুর্ক্তিমূলক প্রবৃদ্ধি এবং ডিজিটাল বাংলাদেশ থেকে স্মার্ট বাংলাদেশে উত্তরণে আইইএলটিএস অত্যাবশ্যকীয় একটি কোর্স। বর্তমান সময়ে ইউরোপ, আমেরিকাসহ উন্নয়নশীল সকল দেশেই IELTS & PTE স্কোর অন্যতম এবং প্রধান একটি চাহিদা। তাই প্রয়োজনীয়তা এবং গুরুত্বের বিষয়টি উপলব্ধি করেই সর্বাধুনিক প্রযুক্তি আত্মীকরণের মাধ্যমে ‘স্কোর ম্যাক্স’ সমাজের সকল স্তরের মানুষেকে ইংরেজী বিষয়ে দক্ষ করে তুলতে নিরলসভাবে কাজ করে যাবে।
বাংলাদেশ ডিজিটাল স্কুল সোসাইটির চেয়ারম্যান অধ্যক্ষ ইয়াহিয়া খান রিজন বলেন, আমাদের এই সেন্টারটি বিশ্বের উন্নয়নশীল দেশগুলোর সাথে তালমিলিয়ে উচ্চতর শিক্ষার্থীদের ইংরেজী ভাষায় কথোপকথনে উন্নতি সাধন, বিশ্ববিদ্যালয়ে ভর্তি কার্যক্রমে সার্বিক সহযোগিতা, সর্বোচ্চ স্কোর নিয়ে উন্নত একটি রাষ্ট্রে সহজে প্রবেশ করতে পারে –সে বিষয়ে গুরুত্ব সহকারে ‘স্কোর ম্যাক্স’ কাজ করবে।

এ সময় উপস্থিত বিভিন্ন সরকারি-বেসরকারি দপ্তরের আমন্ত্রিত বিশেষ অতিথিবৃন্দ এই উদ্যোগের ব্যাপারে তাদের গুরুত্বপূর্ণ মতামত এবং উপদেশ ব্যক্ত করেন। তাঁরা ইংরেজী ভাষার অন্তর্ভুক্তিমূলক বন্টন, উন্নত ও উন্নয়নশীল দেশসমূহে আইইএলটিএস’র গুরুত্ব, প্রয়োজনীয়তা এবং উচ্চতর শিক্ষার্থীদের ইংরেজী বিষয়ে অধিকতর পারদর্শী হওয়ার আহবান জানান। এ লক্ষ্যে ‘স্কোর ম্যাক্স সেন্টার কার্যকর ভূমিকা রাখবে বলে তাঁরা আশাবাদ ব্যক্ত করেন।

উল্লেখ্য, উচ্চ শিক্ষা এবং অভিবাসনের জন্য IELTS (International English Language Testing System) স্কোর বিশ্বের সবচেয়ে জনপ্রিয় এবং প্রচলিত ইংরেজি ভাষায় দক্ষতা পরীক্ষা হিসাবে বিবেচিত ও ব্যাপকভাবে স্বীকৃত। দেশের কোনো নাগরিক বিদেশে উচ্চতর শিক্ষা নিতে চাইলে, স্থায়ীভাবে কর্মজীবনের বিকাশ করতে চাইলে বা বসতি স্থাপন করতে চাইলে ভিসা প্রাপ্তিতে IELTS স্কোর প্রধান চাহিদা পূরণে অন্যতম সহায়ক হিসেবে কাজ করে।

কারণ IELTS স্কোর পরীক্ষার ফলাফল বিদেশের কোনো শিক্ষা প্রতিষ্ঠান, নিয়োগকর্তা, পেশাদার সংস্থা বা সরকার দ্বারা স্বীকৃত হবে যা কোনো ব্যাক্তির ইংরেজি ভাষার উপর দক্ষতা যাচাইয়ে প্রমাণপত্র হিসেবে কাজ করবে। করতে হবে। অস্ট্রেলিয়া, কানাডা, নিউজিল্যান্ড এবং ইউনাইটেড কিংডমের সরকার সকলেই ইমিগ্রেশন আবেদন প্রক্রিয়াকরণের সময় IELTS স্কোর-কে আবশ্যিক বা প্রধান্য দিয়ে থাকে।IELTS  স্কোর 30 বছরেরও বেশি সময় ধরে ইংরেজি-ভাষা পরীক্ষার জন্য মান নির্ধারণ করে আসছে। এটি বিশ্বের 140 টিরও বেশি দেশে 11,500 টিরও বেশি সংস্থার দ্বারা বিশ্বস্ত।
অপরদিকে, বিশ্বব্যাপী শিক্ষা প্রতিষ্ঠান PTE (Pearson Test of English) পরীক্ষাকে ইংরেজি ভাষার দক্ষতা পরীক্ষা হিসেবে স্বীকৃতি দেয়। শিক্ষার্থী এবং আবেদনকারীরা যারা বিদেশে পড়াশোনা করতে চায় বা বিদেশে অভিবাসন করতে চায় তারা সাধারণত এই ইংরেজি পরীক্ষা দেয়। PTE পরীক্ষা হল দেশের শিক্ষার্থীদের জন্য সবচেয়ে বিশ্বস্ত ইংরেজি পরীক্ষাগুলির মধ্যে অন্যতম। যা বিদেশের বিশ্ববিদ্যালয়ে বা দেশগুলিতে আবেদন করতে চাইলে যোগাযোগের প্রাথমিক উত্স হিসাবে কাজ করে। অস্ট্রেলিয়া, নিউজিল্যান্ড,যুক্তরাষ্ট্র এবং যুক্তরাজ্যেসহ আরো অনেক দেশে ইংরেজি ভাষাকে প্রধান্য দেওয়া প্রায় 3,000 টিরও বেশি কলেজ-বিশ্ববিদ্যালয়ে ভর্তি আবেদন, ভিসা আবেদন এবং প্রাপ্তির  জন্য পূর্ব শর্ত হিসেবে PTE স্কোর আশ্যিক হিসেবে কাজ করে।