ছেলেকে হত্যার পর অজ্ঞান হয়ে হাসপাতালে ভর্তি মা

গাজীপুর প্রতিনিধি;
  • প্রকাশিত: ১৮ অক্টোবর ২০২১, ১:৫৫ অপরাহ্ণ | আপডেট: ১ মাস আগে

ছবি সংগৃহীত

গাজীপুরে ভাসুরের বাড়িতে বেড়াতে গিয়ে চার মাসের শিশু সন্তানকে শ্বাসরোধ করে হত্যার অভিযোগ পাওয়া গেছে মায়ের বিরুদ্ধে।

সোমবার সকালে গাজীপুর সিটি কর্পোরেশনের কাশিমপুর থানার এনায়েতপুর এলাকায় ঘটনা ঘটে। এ ঘটনায় পুলিশ শিশুটির মা ফাতেমা আক্তারকে গ্রেপ্তার করেছে।

নিহত শিশু হলো- পিরোজপুরের ভান্ডারিয়া থানার সদর এলাকার এইচ‌এম আব্দুল হাকিমের ছেলে আবিদুর রহমান। তার বয়স চার মাস।

গাজীপুর মেট্রোপলিটন কাশিমপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মাহবুবে খোদা নিহতের স্বজনদের বরাত দিয়ে বলেন, গত শুক্রবার শিশু আবিদুর রহমানকে নিয়ে কাশিমপুর থানাধীন এনায়েতপুর এলাকায় ভাসুরের বাড়ি বেড়াতে যান ফাতেমা আক্তার। সোমবার ভোরে ফাতেমা ঘুমে থেকে উঠে তার শিশু সন্তানকে গলাটিপে শ্বাসরোধ করে হত্যা করে। পরে তিনি বাড়ির লোকজনকে তার শিশু ছেলেকে হত্যার কথা জানিয়ে অচেতন হয়ে পড়েন।

এ সময় বাড়ির লোকজন পুলিশকে খবর দেয়। খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে শিশুর মরদেহ উদ্ধার করে। পরে ময়নাতদন্তের জন্য মরদেহ গাজীপুর শহীদ তাজউদ্দীন আহমদ মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল মর্গে পাঠানো হয়।

নিহত আবিদুর রহমানের গলায় হাতের ছাপের মতো দাগ রয়েছে এবং নাক ও মুখ লালচে বর্ণের ছিলো। ওই সময় স্বজনরা অচেতন অবস্থায় ফাতেমা আক্তারকে উদ্ধার করে হাসপাতালে ভর্তি করে।

ওসি মো. মাহবুবে খোদা বলেন, শিশুটির মাকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে এবং তিনি হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছে। তিনি সুস্থ হলে কেনো বা কি কারণে নিজের সন্তানকে হত্যা করেছে সে বিষয়ে বিস্তারিত জানা যাবে। প্রাথমিকভাবে ধারণা করা হচ্ছে, তাকে গলাটিপে শ্বাসরোধ করে হত্যা করা হয়েছে।

শেয়ার করুন

এই সম্পর্কিত আরও খবর...