ইমামের কবজি বিচ্ছিন্ন, অস্ত্রসহ যুবক গ্রেপ্তার

বরিশাল প্রতিনিধি;
  • প্রকাশিত: ১৩ নভেম্বর ২০২১, ৭:২৭ পূর্বাহ্ণ | আপডেট: ২ সপ্তাহ আগে

ছবি সংগৃহীত

বরিশালের বাবুগঞ্জ উপজেলার জাহাঙ্গীরনগর ইউনিয়নে মো. ইয়াকুব আলী (৩৮) নামে মসজিদের এক ইমামকে রামদা দিয়ে কোপানো হয়েছে।

এতে ইমামের বাম হাতের কবজি ও ডান হাতের তিনটি আঙুল বিচ্ছিন্ন হয়ে গেছে। আশঙ্কাজনক অবস্থায় চিকিৎসার জন্য তাকে ঢাকায় প্রেরণ করা হয়েছে।

এ ঘটনায় হামলাকারী যুবককে আটক করে পুলিশে সোপর্দ করেছে এলাকাবাসী।

শুক্রবার রাত ৮টার দিকে উপজেলার বীরশ্রেষ্ঠ জাহাঙ্গীর নগর (আগরপুর) ইউনিয়নের ইসলামপুর এলাকার বাইতুর নূর জামে মসজিদের সামনে এ ঘটনা ঘটে।

আহত ইমাম মো. ইয়াকুব আলী ইউনিয়নের জাহাঁপুর গ্রামের আজহার আলীর ছেলে এবং পশ্চিম ইসলামপুর জামে মসজিদের ইমাম।

অন্যদিকে হামলাকারী বাবুল মাঝি (২৮) একই ইউনিয়নের ইসলামপুর এলাকার ফরিদ মাঝির ছেলে।

বরিশাল জেলার অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মো. শাজাহান জানান, আটক বাবুল মাঝী চট্টগ্রামের রাঙ্গুনিয়ার একটি মাদ্রাসায় পড়ালেখা শেষ করে সম্প্রতি গ্রামে ফিরে আসে। ওই মসজিদের ইমামের নামাজ পড়ানোয় ক্রটি আছে বলে সে দাবি করে আসছে। সম্প্রতি সে ওই মসজিদে তার মতো করে এতেকাফের জন্য বসতে চায়। কিন্তু ইমাম ইয়াকুব আলী তাকে এতেকাফে বসতে বাধা দেয়।

এর জের ধরে ব্যক্তিগত আক্রোশের বশবর্তী হয়ে শুক্রবার রাত ১১টার দিকে ওই মসজিদের সামনে ইমাম ইয়াকুব আলীকে একা পেয়ে ধারালো অস্ত্র দিয়ে কুপিয়ে তার বাম হাতের কবজি এবং ডান হাতের তিনটি আঙ্গুল বিচ্ছিন্ন করে ফেলে বাবুল মাঝী। স্থানীয়রা আশঙ্কাজনক অবস্থায় তাকে উদ্ধার করে বরিশাল শের-ই বাংলা মেডিকেলে ভর্তি করে। সেখান থেকে উন্নত চিকিৎসার জন্য রাতেই তাকে ঢাকায় প্রেরণ করা হয়।

এদিকে ইমামের ওপর হামলার ঘটনায় অভিযুক্ত বাবুল মাঝীকে গ্রেপ্তার করে এবং তার কাছ থেকে হামলায় ব্যবহৃত ধারালো দা এবং ঘটনাস্থল থেকে বিচ্ছিন্ন কবজি উদ্ধার করে পুলিশ।

এ ঘটনায় আইনগত ব্যবস্থা নেয়ার কথা জানিয়েছেন তিনি।

শেয়ার করুন

এই সম্পর্কিত আরও খবর...