ঢুকলেই তাকে আর গ্রেফতার করা যায় না

চুয়াডাঙ্গা প্রতিনিধি;
  • প্রকাশিত: ২০ নভেম্বর ২০২১, ১১:১৮ পূর্বাহ্ণ | আপডেট: ২ সপ্তাহ আগে

ছবি সংগৃহীত

চুয়াডাঙ্গার শীর্ষ নারী মাদক কারবারি শিপ্রা বেগমকে (৬০) গ্রেফতার করেছে পুলিশ। তার বিরুদ্ধে ৫১ টি মাদকের মামলা রয়েছে।

বুধবার চুয়াডাঙ্গা জেলার বুদ্ধিমান পাড়া থেকে তাকে গ্রেফতার করা হয়। গ্রেফতার শিপ্রা চুয়াডাঙ্গা জেলার বুজরুকগড়গড়ি এলাকার মৃত বাবুল রহমানের স্ত্রী।

পুলিশ জানায়, শিপ্রা প্রথমে সীমান্ত এলাকায় বিভিন্ন পণ্য চোরাচালান করতেন। পরে মাদক ব্যবসায় যুক্ত হন। ১৯৯১ সালে সর্বপ্রথম তার বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করা হয়। এরপর এই ৩০ বছরে ৫১ টি মাদকের মামলা দায়ের হয় তার বিরুদ্ধে। গ্রেফতার হন শতাধিকবার। বিভিন্ন মেয়াদে সাজাও হয় ৪ মামলায়।

শিপ্রার স্বামী বাবুল মারা যান ২০১৫ সালে। তিনি একাধিক মাদক মামলার আসামি ছিলেন। তার ছেলে আলী হোসেন ৫ মামলার আসামি। যার একটি মামলায় ৩২ বছরের সাজা খাটছে ২০১৫ সাল থেকে।

পুলিশ আরো জানায়, শিপ্রা ঘরের ভেতর ঢুকলেই তাকে আর গ্রেফতার করা যায় না। ঘরের টয়লেটে গোপন একটি দরজা বানিয়েছেন তিনি। পুলিশ আসলেই সেই দরজা দিয়ে পালিয়ে যান শিপ্রা।

চুয়াডাঙ্গা থানার ওসি মোহাম্মদ মহসীন বলেন, শিপ্রা চুয়াডাঙ্গা জেলার শীর্ষ নারী মাদক কারবারি। তার বিরুদ্ধে ৫১ টি মামলা রয়েছে। এর মধ্যে ৪ টি মামলায় বিভিন্ন মেয়াদে সাজাও হয়েছে। তার স্বামী, সন্তানও মাদক কারবারি। স্বামী মারা গেলেও তার সন্তান আলী হোসেন (৪০) মাদক মামলায় ৩২ বছরের সাজা পেয়ে এখন কারাভোগ করছে।

শেয়ার করুন

এই সম্পর্কিত আরও খবর...