ঢাকা ০৩:২৬ পূর্বাহ্ন, মঙ্গলবার, ২৭ ফেব্রুয়ারী ২০২৪, ১৪ ফাল্গুন ১৪৩০ বঙ্গাব্দ

বিএনপির রোড মার্চে যাওয়া সন্দেহে নাটোরে মাইক্রোবাসে আগুন

নাটোর প্রতিনিধি
  • আপডেট : ০৫:১২:৪৩ অপরাহ্ন, রবিবার, ১৭ সেপ্টেম্বর ২০২৩
  • / 149
নাটোরের একটি মাইক্রোবাসে আগুন দিয়ে পুড়িয়ে দিয়েছে দুর্বৃত্তরা। এসময় মাইক্রোচালক শাহিন আলম দুবৃর্ত্তের হামলায় আহত হয়েছেন।

রোববার সকাল সাড়ে দশটার দিকে নাটোর বগুড়া মহাসড়কের ডালসড়ক এলাকায় এই ঘটনা ঘটে। পুলিশ ও ফায়ার সার্ভিসের একটি দল ঘটনাস্থলে গিয়ে আগুন নিয়ন্ত্রণে আনে।

মাইক্রেবাসের মালিক রকিবুল ইসলাম অভিযোগ করে বলেন, স্থানীয় আওয়ামী লীগের কর্মীরা মাইক্রোবাসে আগুন দিয়ে পুড়িয়ে দেয়। বিএনপির রোড মার্চে যোগ দিতে যাওয়ার সন্দেহে মাইক্রোবাসে আগুন দেয় তারা। বিয়ের কনে দেখতে ভাড়া নিয়ে নওগাঁ যাচ্ছিল মাইক্রোবাসটি।

তিনি আরও বলেন, চালক মোবাইল ফোনে মাইক্রোবাসে আগুন ধরিয়ে দেয়ার বিষয়টি জানালে তিনি ঘটনাস্থলে ছুটে আসেন।

পুলিশ ও স্থানীয়রা জানায়, নাটোর থেকে একটি মাইক্রোবাস বগুড়া অভিমুখে যাচ্ছিলো। নাটোর বগুড়া মহাসড়কের ডালসড়ক এলাকায় একদল দুর্বৃত্তরা মাইক্রোবাসটির পথ রোধ করে দাঁড়ায় এবং আগুন ধরিয়ে দেয়। মুহূর্তে মাইক্রোবাসটি আগুনে পুড়ে ভস্মিভুত হয়। বাধা দেয়ায় চালক শাহিনকে পিটিয়ে আহত করে দুর্বৃত্তরা।

স্থানীয়রা তাকে উদ্ধার করে হাসপাতালে নিয়ে যায়। মাইক্রেবাসের যাত্রিরা আগেই নেমে যাওয়ায় তারা রক্ষা পেয়েছে বলে জানায় স্থানীয়রা। তবে পুলিশ মাইক্রোবাসটির চালকসহ যাত্রিদের অনুসন্ধান করছে। স্থানীয়রা জানায়, বগুড়া থেকে বিএনপির রোড মার্চে যোগ দিতে যাওয়ার সন্দেহে মাইক্রোবাসে আগুন দেয় কয়েকজন দুর্বৃত্ত।

নাটোর ফায়ার স্টেশনের লিডার রুহুল আযম বলেন, খবর পেয়ে সকাল সাড়ে দশটার দিকে ঘটনাস্থলে গিয়ে মাইক্রোবাসে আগুন জ্বলতে দেখা যায়। তারা আগুন নিভিয়ে ফেললেও মাইক্রোবাসের কাউকে পাওয়া যায়নি।

এবিষয়ে জানতে মোবাইল ফোনে জেলা আওয়ামী লীগের সাধারন সম্পাদক শরিফুল ইসলাম রমজানের সাথে যোগাযোগ করা হলে, তিনি এবিষয়ে কিছুই জানেনা বলে জানান। জেনে জানাবেন বলেন।

নাটোর সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা ওসি নাসিম আহমেদ জানান- ঘটনার তদন্ত চলছে, তদন্ত না করে এ বিষয়ে কোন কিছুই বলা সম্ভব হচ্ছে না।

নিউজটি শেয়ার করুন

ট্যাগস :

বিএনপির রোড মার্চে যাওয়া সন্দেহে নাটোরে মাইক্রোবাসে আগুন

আপডেট : ০৫:১২:৪৩ অপরাহ্ন, রবিবার, ১৭ সেপ্টেম্বর ২০২৩
নাটোরের একটি মাইক্রোবাসে আগুন দিয়ে পুড়িয়ে দিয়েছে দুর্বৃত্তরা। এসময় মাইক্রোচালক শাহিন আলম দুবৃর্ত্তের হামলায় আহত হয়েছেন।

রোববার সকাল সাড়ে দশটার দিকে নাটোর বগুড়া মহাসড়কের ডালসড়ক এলাকায় এই ঘটনা ঘটে। পুলিশ ও ফায়ার সার্ভিসের একটি দল ঘটনাস্থলে গিয়ে আগুন নিয়ন্ত্রণে আনে।

মাইক্রেবাসের মালিক রকিবুল ইসলাম অভিযোগ করে বলেন, স্থানীয় আওয়ামী লীগের কর্মীরা মাইক্রোবাসে আগুন দিয়ে পুড়িয়ে দেয়। বিএনপির রোড মার্চে যোগ দিতে যাওয়ার সন্দেহে মাইক্রোবাসে আগুন দেয় তারা। বিয়ের কনে দেখতে ভাড়া নিয়ে নওগাঁ যাচ্ছিল মাইক্রোবাসটি।

তিনি আরও বলেন, চালক মোবাইল ফোনে মাইক্রোবাসে আগুন ধরিয়ে দেয়ার বিষয়টি জানালে তিনি ঘটনাস্থলে ছুটে আসেন।

পুলিশ ও স্থানীয়রা জানায়, নাটোর থেকে একটি মাইক্রোবাস বগুড়া অভিমুখে যাচ্ছিলো। নাটোর বগুড়া মহাসড়কের ডালসড়ক এলাকায় একদল দুর্বৃত্তরা মাইক্রোবাসটির পথ রোধ করে দাঁড়ায় এবং আগুন ধরিয়ে দেয়। মুহূর্তে মাইক্রোবাসটি আগুনে পুড়ে ভস্মিভুত হয়। বাধা দেয়ায় চালক শাহিনকে পিটিয়ে আহত করে দুর্বৃত্তরা।

স্থানীয়রা তাকে উদ্ধার করে হাসপাতালে নিয়ে যায়। মাইক্রেবাসের যাত্রিরা আগেই নেমে যাওয়ায় তারা রক্ষা পেয়েছে বলে জানায় স্থানীয়রা। তবে পুলিশ মাইক্রোবাসটির চালকসহ যাত্রিদের অনুসন্ধান করছে। স্থানীয়রা জানায়, বগুড়া থেকে বিএনপির রোড মার্চে যোগ দিতে যাওয়ার সন্দেহে মাইক্রোবাসে আগুন দেয় কয়েকজন দুর্বৃত্ত।

নাটোর ফায়ার স্টেশনের লিডার রুহুল আযম বলেন, খবর পেয়ে সকাল সাড়ে দশটার দিকে ঘটনাস্থলে গিয়ে মাইক্রোবাসে আগুন জ্বলতে দেখা যায়। তারা আগুন নিভিয়ে ফেললেও মাইক্রোবাসের কাউকে পাওয়া যায়নি।

এবিষয়ে জানতে মোবাইল ফোনে জেলা আওয়ামী লীগের সাধারন সম্পাদক শরিফুল ইসলাম রমজানের সাথে যোগাযোগ করা হলে, তিনি এবিষয়ে কিছুই জানেনা বলে জানান। জেনে জানাবেন বলেন।

নাটোর সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা ওসি নাসিম আহমেদ জানান- ঘটনার তদন্ত চলছে, তদন্ত না করে এ বিষয়ে কোন কিছুই বলা সম্ভব হচ্ছে না।