ঢাকা ০৫:৩৮ পূর্বাহ্ন, শুক্রবার, ১৪ জুন ২০২৪, ৩০ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

ওড়িশায় ট্রেন দুর্ঘটনায় হতাহতদের সাহায্যে হেল্পলাইন বলিউড অভিনেতার

বিনোদন ডেস্ক
  • আপডেট : ০৭:৩৭:৪৩ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ৮ জুন ২০২৩
  • / 144
অভিনেতা হিসাবে বলিউডে চেনামুখ তিনি। কাজ করেছেন দক্ষিণী বিনোদন জগতেও। তবে অভিনয়ের থেকেও সমাজকল্যাণমূলক কাজের জন্য বেশি নামডাক সোনু সুদের।

অতিমারির সময় থেকেই সমাজকল্যাণমূলক কাজের দিকে মন দিয়েছেন সোনু। পরিযায়ী শ্রমিকদের বাসে করে বাড়ি পাঠানো থেকে শুরু করে আর্থিক ভাবে পিছিয়ে পড়া বাচ্চাদের লেখাপড়ার খরচের ব্যবস্থা করা নিজের কাঁধে দায়িত্ব তুলে নিয়েছেন সোনু।

সম্প্রতি ওড়িশার বালেশ্বরে ঘটে যাওয়া ভয়াবহ ট্রেন দুর্ঘটনার পরে হতাহতদের পরিবারের পাশে দাঁড়ালেন দক্ষিণী এই বলিউড অভিনেতা।

করমণ্ডল ট্রেন দুর্ঘটনায় এখনও পর্যন্ত প্রাণ গিয়েছে ২৮৮ জনের। আহতদের সংখ্যা হাজারের কাছাকাছি। এ বার দুর্ঘটনায় প্রভাবিতদের জীবনের মূল স্রোতে ফিরিয়ে আনতে উদ্যোগী হলেন সোনু সুদ।

দুর্ঘটনাগ্রস্তদের পরিবারের শিশুদের লেখাপড়ার খরচ থেকে শুরু করে প্রাপ্তবয়স্কদের রুজি-রোজগারের ব্যবস্থা করার ক্ষেত্রে সাহায্য করার প্রতিশ্রুতি দিলেন বলিউড অভিনেতা। এই গোটা কাজের জন্য একটি হেল্পলাইনও চালু করলেন সোনু।

টুইটারে একটি ফোন নম্বর শেয়ার করেন তিনি। যে কোনও রকম সাহায্যের জন্য ওই নম্বরে যোগাযোগ করতে অনুরোধ করেন সোনু।

এর আগে দুর্ঘটনাগ্রস্তদের ক্ষতিপূরণ নিয়ে টুইটারে মুখ খুলেছিলেন সোনু সুদ। কেন্দ্রীয় সরকারের ক্ষতিপূরণ ঘোষণা করে দেয়াই কি যথেষ্ট? প্রশ্ন তুলেছিলেন অভিনেতা। যদিও কারও নাম উল্লেখ না করেই এই প্রশ্ন তোলেন তিনি।

টুইটারে একটি ভিডিও শেয়ার করে সোনু বলেন, ‘শুধু এই ক্ষতিপূরণেই কি সবটা মিটে যায়? আমরা সবাই ট্যুইট করছি। দুঃখপ্রকাশ করছি। কিন্তু কিছুদিন পরই সবাই নিজের নিজের কাজে ব্যস্ত হয়ে পড়ব। ধীরে ধীরে এই ঘটনায় আহত-নিহতদের কথা ভুলেও যাব। কিন্তু যারা এত বড় দুর্ঘটনার মুখে পড়লেন, তারা কি আর কোনওদিন স্বাভাবিক হতে পারবেন? নিহতদের পরিবারগুলি কি আর কখনও মাথা তুলে দাঁড়াতে পারবে?’

সরকারের কাছে সোনুর আর্জি, দুর্ঘটনাগ্রস্তদের যদি একটি নির্দিষ্ট পেনশনের আওতায় আনা যায়। প্রতি মাসে তাদের উপার্জনের বন্দোবস্ত করার অনুরোধ রাখেন এই অভিনেতা।

সূত্র: আনন্দবাজার পত্রিকা অনলাইন

নিউজটি শেয়ার করুন

ট্যাগস :

ওড়িশায় ট্রেন দুর্ঘটনায় হতাহতদের সাহায্যে হেল্পলাইন বলিউড অভিনেতার

আপডেট : ০৭:৩৭:৪৩ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ৮ জুন ২০২৩
অভিনেতা হিসাবে বলিউডে চেনামুখ তিনি। কাজ করেছেন দক্ষিণী বিনোদন জগতেও। তবে অভিনয়ের থেকেও সমাজকল্যাণমূলক কাজের জন্য বেশি নামডাক সোনু সুদের।

অতিমারির সময় থেকেই সমাজকল্যাণমূলক কাজের দিকে মন দিয়েছেন সোনু। পরিযায়ী শ্রমিকদের বাসে করে বাড়ি পাঠানো থেকে শুরু করে আর্থিক ভাবে পিছিয়ে পড়া বাচ্চাদের লেখাপড়ার খরচের ব্যবস্থা করা নিজের কাঁধে দায়িত্ব তুলে নিয়েছেন সোনু।

সম্প্রতি ওড়িশার বালেশ্বরে ঘটে যাওয়া ভয়াবহ ট্রেন দুর্ঘটনার পরে হতাহতদের পরিবারের পাশে দাঁড়ালেন দক্ষিণী এই বলিউড অভিনেতা।

করমণ্ডল ট্রেন দুর্ঘটনায় এখনও পর্যন্ত প্রাণ গিয়েছে ২৮৮ জনের। আহতদের সংখ্যা হাজারের কাছাকাছি। এ বার দুর্ঘটনায় প্রভাবিতদের জীবনের মূল স্রোতে ফিরিয়ে আনতে উদ্যোগী হলেন সোনু সুদ।

দুর্ঘটনাগ্রস্তদের পরিবারের শিশুদের লেখাপড়ার খরচ থেকে শুরু করে প্রাপ্তবয়স্কদের রুজি-রোজগারের ব্যবস্থা করার ক্ষেত্রে সাহায্য করার প্রতিশ্রুতি দিলেন বলিউড অভিনেতা। এই গোটা কাজের জন্য একটি হেল্পলাইনও চালু করলেন সোনু।

টুইটারে একটি ফোন নম্বর শেয়ার করেন তিনি। যে কোনও রকম সাহায্যের জন্য ওই নম্বরে যোগাযোগ করতে অনুরোধ করেন সোনু।

এর আগে দুর্ঘটনাগ্রস্তদের ক্ষতিপূরণ নিয়ে টুইটারে মুখ খুলেছিলেন সোনু সুদ। কেন্দ্রীয় সরকারের ক্ষতিপূরণ ঘোষণা করে দেয়াই কি যথেষ্ট? প্রশ্ন তুলেছিলেন অভিনেতা। যদিও কারও নাম উল্লেখ না করেই এই প্রশ্ন তোলেন তিনি।

টুইটারে একটি ভিডিও শেয়ার করে সোনু বলেন, ‘শুধু এই ক্ষতিপূরণেই কি সবটা মিটে যায়? আমরা সবাই ট্যুইট করছি। দুঃখপ্রকাশ করছি। কিন্তু কিছুদিন পরই সবাই নিজের নিজের কাজে ব্যস্ত হয়ে পড়ব। ধীরে ধীরে এই ঘটনায় আহত-নিহতদের কথা ভুলেও যাব। কিন্তু যারা এত বড় দুর্ঘটনার মুখে পড়লেন, তারা কি আর কোনওদিন স্বাভাবিক হতে পারবেন? নিহতদের পরিবারগুলি কি আর কখনও মাথা তুলে দাঁড়াতে পারবে?’

সরকারের কাছে সোনুর আর্জি, দুর্ঘটনাগ্রস্তদের যদি একটি নির্দিষ্ট পেনশনের আওতায় আনা যায়। প্রতি মাসে তাদের উপার্জনের বন্দোবস্ত করার অনুরোধ রাখেন এই অভিনেতা।

সূত্র: আনন্দবাজার পত্রিকা অনলাইন