ঢাকা ০১:৪২ পূর্বাহ্ন, মঙ্গলবার, ২৭ ফেব্রুয়ারী ২০২৪, ১৪ ফাল্গুন ১৪৩০ বঙ্গাব্দ

নীলক্ষেতে ঢাবি অধিভুক্ত ৭ কলেজ শিক্ষার্থীদের অবস্থান

নিজস্ব প্রতিবেদক
  • আপডেট : ০৪:৫৪:২৮ অপরাহ্ন, বুধবার, ১৬ অগাস্ট ২০২৩
  • / 113
ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় (ঢাবি) অধিভুক্ত সরকারি সাত কলেজের কয়েকটি শিক্ষাবর্ষের শিক্ষার্থীরা সিজিপিএ শর্ত শিথিল করে পরবর্তী বর্ষে প্রমোশন দেয়ার এক দফা দাবিতে নীলক্ষেতে অবস্থান নিয়েছে।

বুধবার দুপুর ১২টার দিকে শিক্ষার্থীরা বৃষ্টির মধ্যেই ব্যানার নিয়ে রাজধানীর নীলক্ষেত মোড়ে অবস্থান নেন। বৃষ্টির তীব্রতা বাড়লে মিরপুর রোডের রাফিন প্লাজার সামনের ফুটওভার ব্রিজের ওপরে অবস্থান নেন শিক্ষার্থীরা। অনাকাঙ্ক্ষিত ঘটনা এড়াতে নীলক্ষেতে অতিরিক্ত পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে। সেখানে উপস্থিত আছেন ডিএমপির নিউমার্কেট জোনের সহকারী পুলিশ কমিশনার ও নিউমার্কেট থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তাসহ আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর সদস্যরা।

এর আগে সকাল সাড়ে ১০টার দিকে আন্দোলনের সিদ্ধান্ত থেকে সরে আসার জন্য শিক্ষার্থীদের সঙ্গে কথা বলেন ঢাকা কলেজের শিক্ষক প্রতিনিধি দল। এ সময় শিক্ষার্থীরা আন্দোলনের সিদ্ধান্তে অনড় থাকার কথা জানালে শিক্ষক প্রতিনিধি দলটি ফিরে যায়।

শিক্ষার্থীরা বলেন, আমরা মানোন্নয়নের মাধ্যমে প্রমোশনের জন্য বিগত তিন মাস ধরে আন্দোলন সংগ্রাম করে যাচ্ছি। আমাদের সমন্বয়ক সুপ্রিয়া ম্যাম আশ্বাস দিয়ে দিয়ে এতদিন ঘুরিয়েছেন। কিন্তু আমাদের প্রমোশনের ব্যাপারে তারা কোনো সিদ্ধান্তই দেননি। বিলম্বে ফলাফল প্রকাশের জন্য, আমরা যেহেতু পরবর্তী বর্ষের জন্য প্রস্তুতি নিয়েছি এবং ইনকোর্স ও টেস্ট পরীক্ষা সম্পন্ন করেছি। তাই সামান্য সিজিপিএ বা জিপিএ শর্তের জন্য বিগত বর্ষের সব বিষয়ে পরীক্ষা দেওয়া সম্ভব নয়। সেজন্য নির্ধারিত সিজিপিএ বা জিপিএ শিথিল করে তিন বিষয় পর্যন্ত মানোন্নয়ন পরীক্ষার মাধ্যমে পরবর্তী বর্ষে প্রমোশন চাই।

এর আগে ২০১৭ সালের ১৬ ফেব্রুয়ারি রাজধানীর ঢাকা কলেজ, ইডেন কলেজ, শহীদ সোহরাওয়ার্দী কলেজ, কবি নজরুল কলেজ, বেগম বদরুন্নেসা সরকারি মহিলা কলেজ, মিরপুর বাঙলা কলেজ ও সরকারি তিতুমীর কলেজ- এই সাত শিক্ষা প্রতিষ্ঠানকে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে (ঢাবি) অধিভুক্ত করা হয়।

এর পর থেকেই শিক্ষার্থীদের অভিযোগ করেন, সাত কলেজ ঢাবি অধিভুক্ত হওয়ার পর থেকে শিক্ষার্থীদের বিভিন্নভাবে হয়রানি করা হচ্ছে। ঢাবি রেজিস্ট্রার ভবনের সেবা দেয়া হচ্ছে সনাতনী পদ্ধতিতে। সাত কলেজ হওয়ায় এখনও তাদের বাঁকা চোখে দেখা হয়।

নিউজটি শেয়ার করুন

ট্যাগস :

নীলক্ষেতে ঢাবি অধিভুক্ত ৭ কলেজ শিক্ষার্থীদের অবস্থান

আপডেট : ০৪:৫৪:২৮ অপরাহ্ন, বুধবার, ১৬ অগাস্ট ২০২৩
ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় (ঢাবি) অধিভুক্ত সরকারি সাত কলেজের কয়েকটি শিক্ষাবর্ষের শিক্ষার্থীরা সিজিপিএ শর্ত শিথিল করে পরবর্তী বর্ষে প্রমোশন দেয়ার এক দফা দাবিতে নীলক্ষেতে অবস্থান নিয়েছে।

বুধবার দুপুর ১২টার দিকে শিক্ষার্থীরা বৃষ্টির মধ্যেই ব্যানার নিয়ে রাজধানীর নীলক্ষেত মোড়ে অবস্থান নেন। বৃষ্টির তীব্রতা বাড়লে মিরপুর রোডের রাফিন প্লাজার সামনের ফুটওভার ব্রিজের ওপরে অবস্থান নেন শিক্ষার্থীরা। অনাকাঙ্ক্ষিত ঘটনা এড়াতে নীলক্ষেতে অতিরিক্ত পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে। সেখানে উপস্থিত আছেন ডিএমপির নিউমার্কেট জোনের সহকারী পুলিশ কমিশনার ও নিউমার্কেট থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তাসহ আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর সদস্যরা।

এর আগে সকাল সাড়ে ১০টার দিকে আন্দোলনের সিদ্ধান্ত থেকে সরে আসার জন্য শিক্ষার্থীদের সঙ্গে কথা বলেন ঢাকা কলেজের শিক্ষক প্রতিনিধি দল। এ সময় শিক্ষার্থীরা আন্দোলনের সিদ্ধান্তে অনড় থাকার কথা জানালে শিক্ষক প্রতিনিধি দলটি ফিরে যায়।

শিক্ষার্থীরা বলেন, আমরা মানোন্নয়নের মাধ্যমে প্রমোশনের জন্য বিগত তিন মাস ধরে আন্দোলন সংগ্রাম করে যাচ্ছি। আমাদের সমন্বয়ক সুপ্রিয়া ম্যাম আশ্বাস দিয়ে দিয়ে এতদিন ঘুরিয়েছেন। কিন্তু আমাদের প্রমোশনের ব্যাপারে তারা কোনো সিদ্ধান্তই দেননি। বিলম্বে ফলাফল প্রকাশের জন্য, আমরা যেহেতু পরবর্তী বর্ষের জন্য প্রস্তুতি নিয়েছি এবং ইনকোর্স ও টেস্ট পরীক্ষা সম্পন্ন করেছি। তাই সামান্য সিজিপিএ বা জিপিএ শর্তের জন্য বিগত বর্ষের সব বিষয়ে পরীক্ষা দেওয়া সম্ভব নয়। সেজন্য নির্ধারিত সিজিপিএ বা জিপিএ শিথিল করে তিন বিষয় পর্যন্ত মানোন্নয়ন পরীক্ষার মাধ্যমে পরবর্তী বর্ষে প্রমোশন চাই।

এর আগে ২০১৭ সালের ১৬ ফেব্রুয়ারি রাজধানীর ঢাকা কলেজ, ইডেন কলেজ, শহীদ সোহরাওয়ার্দী কলেজ, কবি নজরুল কলেজ, বেগম বদরুন্নেসা সরকারি মহিলা কলেজ, মিরপুর বাঙলা কলেজ ও সরকারি তিতুমীর কলেজ- এই সাত শিক্ষা প্রতিষ্ঠানকে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে (ঢাবি) অধিভুক্ত করা হয়।

এর পর থেকেই শিক্ষার্থীদের অভিযোগ করেন, সাত কলেজ ঢাবি অধিভুক্ত হওয়ার পর থেকে শিক্ষার্থীদের বিভিন্নভাবে হয়রানি করা হচ্ছে। ঢাবি রেজিস্ট্রার ভবনের সেবা দেয়া হচ্ছে সনাতনী পদ্ধতিতে। সাত কলেজ হওয়ায় এখনও তাদের বাঁকা চোখে দেখা হয়।